Tuesday, January 22, 2019
সর্বশেষ সংবাদ
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল হবে না: আইনমন্ত্রী         বিরোধীদের নির্মূলে সরকার মরিয়া: মির্জা আলমগীর         পুনঃনির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনে নামছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বাম জোট         বন্দিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ ৩ দিন বন্ধ থাকবে         কোম্পানীগঞ্জে গর্তে পড়ে আবারো এক শ্রমিক নিহত         সিসিকের বকেয়া বিল আদায় অভিযান অব্যাহত, ৭ দিনে ৩৩ লাখ টাকা আদায়         ছড়া-খাল দখলকারীরা যত বড় প্রভাবশালী হোক, তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা-সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী         নগরীতে ‘বৈকালিক সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন’ টিকাদান কর্মসূচিতে বিশ্বে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল—সিসিকের প্রধান নির্বাহী         চার দেশে আশ্রয় চাইলেন আলোচিত সৌদি যুবতী কুনুন         ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২: স্থগিত ৩ কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে        

মন্ত্রিসভায় থাকতে পারে বড় চমক: কাদের

নিউজ সর্বশেষ২৪ রিপোর্ট ঢাকা:  নতুন মন্ত্রিসভায় বড় চমক থাকতে পারে বলে আভাস দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (৪ জানুয়ারি) সকালে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আওয়ামী লীগের সাংসদদের শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

নতুন মন্ত্রিসভা কেমন হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে আওয়ামী লীগের পথচলা। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ যেমন বড় জয় পেয়েছে, তেমনি নতুন মন্ত্রিসভাতেও কিছু চমক থাকতে পারে।”

এসময় তিনি বিএনপি সম্পর্কে বলেন, “একাদশ জাতীয় সংসদে যোগ না দিলে বিএনপিকে ব্যর্থতার বৃত্তেই আটকে থাকতে হবে। শপথ না নিয়ে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট পুরনো ভুলের পুনরাবৃত্তি করছে।”

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, “৩০ ডিসেম্বর জনগণ যে রায় দিয়েছে, যেটুকু রায় দিয়েছে এটা তাদের সম্মান করা উচিত। সেটা তারা সম্মান করতে ব্যর্থ। ব্যর্থতার গণ্ডিতে বারে বারে আটকে থাকতে হচ্ছে তাদের। ব্যর্থতা থেকে বেরোতে পারছে না তারা।”

তিনি বলেন, “আমি আমাদের পার্টির পক্ষ থেকে, সরকারের পক্ষ থেকেও আমন্ত্রণ করেছিলাম। তাদেরকে অনুরোধ করেছিলাম যে, জনগণের রায়কে অসম্মান করা উচিত হবে না।”

ওবায়দুল কাদের বলেন, “উন্নয়নের পক্ষে এবং আমাদের নেত্রীর ব্যক্তিগত সততা এবং ক্যারিশমার পক্ষে এই জনরায়। এটা নিঃসন্দেহে বলা যায়, এই নির্বাচনের বিজয়ের মূল চালিকা শক্তি হচ্ছে ‘হাসিনা ম্যাজিক’। এটাই হলো বাস্তবতা। লিডারের প্রতি তার উন্নয়ন, তার রাজনীতি, তার স্বচ্ছতা, তার সততা, তার যোগ্যতা-দক্ষতা প্রতি সমর্থন দিয়েছে দেশের মানুষ।”

এসময় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির সাবেক এই সভাপতি বলেন, “ছাত্রলীগ তো তারুণ্যের প্রতীক, এনার্জির প্রতীক। ছাত্রলীগ সময়ের চাহিদা পূরণে দায়িত্ব পালন করবে। উন্নয়নের পক্ষে বাংলাদেশের তরুণ সমাজকে সংগঠিত করবে।”

সর্বশেষ সংবাদ