সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

১০ শতাংশ চাঁদা কর্তনের আদেশ বাতিলের দাবী বাকবিশিস এর

এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের



নিউজ সর্বশেষ২৪রিপোর্ট: বেসরকারী স্কুল-কলেজের এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের ফান্ডে ৬ শতাংশের পরিবর্তে ১০ শতাংশ চাঁদা কর্তনের আদেশের নিন্দা এবং তা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস) সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার নেতৃবৃন্দ। যৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে ১০ শতাংশ কর্তনের সিদ্ধান্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের স্বার্থের পরিপন্থী।

বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির প্রেসিডিয়াম মেম্বার ভাস্কর রঞ্জন দাস `বাকবিশিস’ সিলেট জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পৃথ্বিশ কান্তি ঘোষ, মহানগর শাখার সভাপতি উপাধ্যক্ষ অজয় কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ফয়েজ আহমদ বাবর ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক কাশমির রেজা ও শিক্ষক ফারুক আহমদ যৌথ বিবৃতিতে অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

 

উল্লেখ্য, ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডের চাঁদার হার ৬ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ কর্তনের জন্য অধিদপ্তর আদেশ জারি করে। এরপর সারা দেশের শিক্ষক-কর্মচারীদের আন্দোলনের মুখে তা স্থগিত করা হয় চাঁদা বাড়ানোর ওই আদেশ।

 

পরবর্তীতে ২০১৮ খ্রিস্টাব্দে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঠিক আগে পুনরায় শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে ১০ শতাংশ অবসর-কল্যাণের চাঁদা কর্তনের আদেশ জারি করা হয়। কিন্তু পরে বিজ্ঞপ্তিটি প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন জানিয়েছিলেন।

 

গত ১৫ এপ্রিল পুনরায় এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে ১০ শতাংশ চাঁদা কর্তনের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরকে আদেশ দেয়ায় সারা দেশের এমপিওভূক্ত শিক্ষক-কর্মচারীরা মর্মাহত ও ক্ষুব্ধ হয়েছেন।