বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শিরোপা জিতেই রিয়ালকে বিমুখ করলেন এমবাপে



নিউজ সর্বশেষ স্পোর্টস: নেইমারকে পিএসজি থেকে ভাগিয়ে নিতে কম চেষ্টা করেনি রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু বিশ্বের সবচেয়ে দামী এই ফুটবলারকে শেষমেশ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে নিতে পারেনি তারা। তাতে ব্যর্থ হয়ে মাদ্রিদ জায়ান্টরা হাত বাড়িয়েছিল কিলিয়ান এমবাপের দিকে। নেইমারের পর যিনি কিনা বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলার।

কোচ হিসেবে জিনেদিন জিদান পুনরায় রিয়ালে যোগ দেওয়ার পর এমবাপের ব্যাপারে আশাবাদী হয়ে উঠেছিল রিয়াল শিবির। ফরাসি গ্রেট নিশ্চয়ই স্বদেশী তরুণকে রিয়াল শিবিরে আনতে পারবেন। কিন্তু স্প্যানিশ জায়ান্টদের সব আশায় জল ঢেলে দিয়েছেন এমবাপে নিজে। রোববার লিগ শিরোপা জয়ের পর সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, রিয়াল মাদ্রিদে যাচ্ছেন না তিনি।

লিগ ওয়ানে গত তিন ম্যাচ ধরে হোঁচট খাচ্ছিল পিএসজি। একটা ম্যাচ জিতলেই লিগ শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যায় তাদের। সেখানে একটি ড্র ও দুইটি ম্যাচ হেরে শিরোপার অপেক্ষা বাড়ছিল। অবশেষে রোববার মোনাকোকে হারিয়ে শিরোপা অক্ষুণ্ণ রাখল প্যারিসের ক্লাবটি।

চোট সমস্যা কাটিয়ে এদিনই মাঠে ফিরেছেন দলটির বড় তারকা নেইমার। নেইমারের মাঠে ফেরার দিন শিরোপা জয় দিয়ে উদযাপন করল ক্লাব পিএসজি। আর এই জয়ে বড় ভূমিকা ছিল এমবাপের। ২০ বছর বয়সী এই বিস্ময় বালকের হ্যাটট্রিকেই ৩-১ গোলের জয় পায় টমাস টুখেলের শিষ্যরা।

ম্যাচ শেষে উঠে আসে এমবাপের রিয়ালে যাওয়ার গুঞ্জনটিও। ওই প্রসঙ্গ আসতেই এমবাপের সরাসরি উত্তর, ‘আমি এখানেই (পিএসজিতে) আছি। এখানে আমি একটা প্রজেক্ট নিয়ে আছি।’

এমবাপের রিয়ালের যাওয়ার গুঞ্জনটির পালে হাওয়া লাগে রিয়ালে জিদানের ফেরার পর থেকে। অনেকেই ধারণা করেছিলেন জিদান হয়তো এমবাপেকে দলে ভেড়াতে পারবেন। কিন্তু সেটা হচ্ছে না। এমবাপে বলেছেন, ‘জিজু (জিদান) রিয়ালে আছেন এটা তাদের জন্য ভালো। আমি একজন দর্শক হিসেবেই রিয়ালের খেলা পছন্দ করি।’

এদিকে চলতি মৌসুমে লিগে এ নিয়ে ৩০ গোল করলেন এমবাপে। এর আগে ১৯৮৯-৯০ সালে জেন-পিয়েরে পাপিন সর্বশেষ এমন কীর্তি গড়েছিলেন।

এমন মাইলফলক গড়তে পেড়ে খুশি ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক। তবে এখানে থেমে যেতে চান না তিনি। মৌসুমের আরো কিছু ম্যাচ এখনো বাকি। গোল সংখ্যা আরো বাড়িয়ে নিতে চান তিনি, ‘৩০ গোল করা সর্বশেষ খেলোয়াড় পাপিন? আমি জানি, আমি জানি। আমি খুবই খুশি। কিন্তু মৌসুম এখনও শেষ হয়নি। সুতরাং আমি আরো গোল করতে পারবো।’