বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘আমি পারিনি তাকে রক্ষা করতে’রিফাত শরীফের স্ত্রী



বরগুনা: আমার সামনেই তাকে হত্যা করলো সন্ত্রাসীরা। আমি অনেক চেষ্টা করেছি। শেষ পর্যন্ত তাকে রক্ষা করতে পারিনি।’

নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা এসব কথা বলেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে বরগুনায় আয়েশার বাবার  বাড়িতে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে আয়েশা সিদ্দিকা বলেন, ‘হামলার সময় কোনো লোক এগিয়ে আসেনি।’

তার দাবি, নয়ন, রিশান ফরাজী ও রিফাত ফরাজী এই হামলা চালিয়েছে।

আয়েশা সিদ্দিকা বলেন, ‘নয়ন বিভিন্ন সময় আমাকে বিরক্ত করত। বিয়ের পরেও সে আমাকে উত্যক্ত করত। আর এ সব রিফাত জানত।’

রিফাতের শ্বশুর বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার চাই আমি।’

গতকাল বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে দুর্বৃত্তরা। এসময় তাকে বাঁচাতে প্রাণপণ চেষ্টা করেন স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা।

পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়।

নিহত রিফাত শরীফ সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের দুলাল শরীফের ছেলে।